Now Reading
ব্রণের ঝুঁকি থেকে রেহাই পেতে কফি পরিহার করুন

ব্রণের ঝুঁকি থেকে রেহাই পেতে কফি পরিহার করুন

ব্রণের ঝুঁকি থেকে রেহাই পেতে কফি পরিহার করুন

ত্বকের সবচেয়ে বড় সমস্যা ও মারাত্মক সমস্যাটির নাম হল ব্রণ। ব্রণ হলে চিন্তার কোনও অন্ত থাকে না। মুখে ব্রণের সমস্যা থাকলে নিজের কাছেও ভাল লাগেনা। তাছাড়া ব্রণ সমস্যার সমাধান হয়ে গেলেও ব্রণের দাগ উঠতে প্রচুর সময়ের প্রয়োজন হয়। তাই ব্রণকে প্রতিরোধ করতে হলে প্রয়োজন সঠিক খাদ্যাভাস। কেননা সঠিক খাদ্যাভাসও পারে ব্রণের সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে। যাদের মুখে ব্রণ রয়েছে তাদের উচিত কফি পরিহার করা।

আমাদের খাদ্যাভ্যাসে কিছু কিছু খাবার আছে যেগুলো মুখে ব্রণ হওয়ার জন্য দায়ী। যেমন পাউরুটি, আলুর চিপস, চকলেট, দুধ ও সোডা। এসব খাদ্য তালিকায় এবার যুক্ত হয়েছে কফি।
পুষ্টি বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, ব্রণ হওয়ার মূল কারণ হচ্ছে হরমোনের ভারসাম্য বজায় না থাকা। কফিতে এমন কিছু রাসায়নিক থাকে, যা মানুষের স্ট্রেস হরমোনকে উদ্দীপিত করে। ফলে মানুষের ক্যালরি গ্রহণ বেড়ে যায়, যা ব্রণ হওয়ার সম্ভাবনাকে বাড়িয়ে তোলে।

তা ছাড়া বেশি কফি পান করলে শরীরে অ্যাসিডের পরিমাণ বেড়ে যায়। যে কারণে শরীরে পানিশূন্যতা দেখা দেয় এবং শরীরের বেশ কিছু জরুরি ভিটামিন ও খনিজ বেরিয়ে যায়। এ কারণেও ব্রণ হতে পারে।

অনেকে কফির সঙ্গে দুধ মিশিয়ে পান করেন, যেটা ত্বকের জন্য আরও মারাত্মক। কফিতে চিনি ও দুধ মেশালে তা টক্সিন হিসেবে কাজ করে। এর ফলে কফির ক্যাফেইন আরও বেশি শক্তিশালী হয়ে যায়। যা ত্বকের ক্ষতি করে। এতে ব্রণের প্রবণতা বাড়ে।

See Also
ত্বকের মসৃণতা আর জেল্লা ধরে রাখতে আপনার হাতিয়ার হোক টাটকা ফলের রস

সুতরাং ব্রণ কমানোর জন্য কফি খাওয়ার পরিমাণ কমিয়ে আনা উচিত। পাশাপাশি পানি পানের পরিমাণ বাড়িয়ে দিতে হবে।

What's Your Reaction?
Excited
0
Happy
0
In Love
0
Not Sure
0
Silly
0
View Comments (0)

Leave a Reply

Scroll To Top