Now Reading
লকডাউনে ক্লান্তি কাটাতে নজর রাখুন আপনার খাদ্যতালিকায়

লকডাউনে ক্লান্তি কাটাতে নজর রাখুন আপনার খাদ্যতালিকায়

লকডাউনে ক্লান্তি কাটাতে নজর রাখুন আপনার খাদ্যতালিকায়

করোনার কারনে একদিকে সারাক্ষণ বাড়িতে একঘেয়ে জীবন কাটানো, আর তার সঙ্গে বাড়ির কাজ আর অফিসের কাজের সমান চাপ, সব মিলিয়ে আমাদের অনেকের মধ্যেই তৈরি হয়েছে এক গভীর ক্লান্তিবোধ। শুধু বিশ্রামে এই ক্লান্তি কাটার নয়, আপনার দরকার ভিতর থেকে সক্রিয় হয়ে ওঠার এনার্জি যা আপনি পাবেন কেবল সঠিক খাওয়াদাওয়া আর সুশৃঙ্খল জীবনযাত্রা থেকে। কিছু টিপস দিলাম আমরা, এগুলো মেনে দেখুন, অবশ্যই সুফল পাবেন।

প্রোটিন খান
লকডাউনে বাড়িতে বন্দি আছেন বলে যা খুশি খেতে থাকবেন, এটা যেন না হয়। রোজকার ডায়েটে ভালো মানের প্রোটিন রাখুন। মাসল, ত্বক, শরীরের জয়েন্ট, মস্তিষ্ক, সবই ঠিকঠাক কাজ করবে প্রোটিন খেলে্

চিনি কম
বাড়িতে মাঝেমধ্যেই মিষ্টি খাওয়া হয়ে যাচ্ছে? খুব বেশি মিষ্টি খাওয়ার অভ্যেস হয়ে গেলে কিন্তু বড়ো ক্ষতি হয়ে যেতে পারে! অতিরিক্ত মিষ্টি আপনার শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা নষ্ট করে দেয়, মস্তিষ্কে একটি বিশেষ রাসায়নিক ক্ষরণে বাধা সৃষ্টি করে যা থেকে ক্লান্তিবোধ তৈরি হয়।

ডায়েটে রাখুন মিনারেলস
বিশেষ বিশেষ মিনারেলসের অভাবে অনেক সময়ই গভীর ক্লান্তিবোধ তৈরি হয়। দৈনন্দিন খাবারে ম্যাগনেশিয়ামের ঘাটতি থাকলে এনার্জির অভাবে ভুগতে পারেন আপনি। সবুজ শাকসবজি, কলা, বাদাম, ছোলার মতো খাবার প্রতিদিন ঘুরিয়েফিরিয়ে খান। তাতে অনেকটা এনার্জি ফিরে পাবেন। একইভাবে খাবারে আয়রন থাকাও খুব দরকার। তাতে অ্যানিমিয়াজনিত ক্লান্তি কাটবে।

See Also
মাত্রাতিরিক্ত ওজন এবং গর্ভবতী হওয়ার চেষ্টা?

চা কফি বেশি নয়
ক্লান্তি কাটাতে বেশি বেশি করে চা-কফি খাওয়া ধরবেন না। ক্যাফিন যেমন শরীরে চটজলদি এনার্জির জোগান দেয়, তেমনি তা থেকে শরীরে ডিহাইড্রেশন দেখা দেয়, যার ফলে ক্লান্তি আরও বেড়ে যায়। তাই সকাল-বিকেল এক কাপ চা বা কফি চলতে পারে, কিন্তু তার বেশি না খাওয়াই ভালো!

ভিটামিন সি খাওয়া বাড়ান
আমাদের নিমেষে চনমনে করে তুলতে পারে ভিটামিন সি। লেবু, আমলকি, মুসুম্বি বেশি করে খান। পেয়ারাতেও প্রচুর ভিটামিন সি রয়েছে। প্রতিদিন ভিটামিন সি খেলে অনেকটাই উদ্দীপ্ত থাকতে পারবেন।

What's Your Reaction?
Excited
0
Happy
0
In Love
0
Not Sure
0
Silly
0
Scroll To Top