Now Reading
মুখ তরুণ আর টানটান রাখতে আপনার বন্ধু করে নিন মসলিন কাপড়কে

মুখ তরুণ আর টানটান রাখতে আপনার বন্ধু করে নিন মসলিন কাপড়কে

মুখ তরুণ আর টানটান রাখতে আপনার বন্ধু করে নিন মসলিন কাপড়কে

ঝকঝকে, পরিস্কার ত্বকের প্রতি আমাদের আকর্ষণ কখনও ফুরোনোর নয়! কীভাবে আরও সহজে ঝলমলে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল ত্বক পাওয়া যায় তা খুঁজে বের করতে ত্বক পরিচর্যার জগতে নিত্যনতুন ট্রেন্ড আসতেই থাকে! আর ত্বকের যত্নের প্রাথমিক ধাপ হল ত্বক পরিষ্কার রাখা। ফেসওয়াশ, ক্লেনজ়িং মিল্ক, মিসেলার ওয়াটার, ফেস স্ক্রাবের পরে এই মুহূর্তে রূপচর্চার জগৎ কাঁপাচ্ছে — কী জানেন? মসলিন কাপড়! হ্যাঁ, বাঙালি বাড়িতে যে মসলিনের কদর আজও সমান জনপ্রিয়, সেই চিরচেনা ফিনফিনে মসলিন কাপড়ই হয়ে উঠেছে মসৃণ ত্বক পাওয়ার পথে তুরুপের তাস!

অবাক হচ্ছেন? বিশ্বাস হচ্ছে না? তা হলে পড়তে থাকুন! মসলিন কাপড়কে আর রূপরুটিন থেকে বাদ দিতে পারবেন না, গ্যারান্টি!

মসলিন কাপড় জিনিসটা কী!
একশো শতাংশ খাঁটি সুতি দিয়ে তৈরি ফিনফিনে নরম কাপড়। অত্যন্ত নরম হওয়ার সুবাদে বাচ্চাদের জামা, ডায়াপার, কম্বলে মসলিন কাপড় ব্যবহার করা হয়। এই কাপড়ের বিশেষত্ব হল, যতবার ধোওয়া হয় কাপড় ততই নরম হতে থাকে। খুঁজলে যে কোনও বাড়িতেই খানিকটা পুরোনো মসলিন কাপড় পাওয়া যাবে। একান্ত না পেলে পাড়ার কাপড়ের দোকান থেকে কিনে নিন।

এত জিনিস থাকতে হঠাৎ মসলিন কাপড় কেনার দরকার পড়ল কেন ভাবছেন? রইল পাঁচটি কারণ, যার জন্য আপনার রূপচর্চায় অপরিহার্য হয়ে উঠবে মসলিন কাপড়।

ত্বক এক্সফোলিয়েট করুন
মসলিন কাপড় এতটাই মিহি আর নরম যে তা দিয়ে মুখ ঘষে পরিষ্কার করলেও এতটুকুও আঁচড় লাগে না ত্বকে। বরং মুখে জমে থাকা মৃত কোষ আর ধুলোময়লা উঠে গিয়ে ত্বক হয়ে ওঠে মসৃণ আর ঝকঝকে। আপনার ত্বক যদি স্বাভাবিক, তেলতেলে বা শুষ্ক ধরনের হয় তা হলে রোজই মসলিন কাপড় দিয়ে মুখ পরিষ্কার করতে পারেন। কিন্তু খুব জোরে জোরে ঘষবেন না। সেনসিটিভ ত্বকে সপ্তাহে দু’ থেকে তিনবার মসলিন কাপড় দিয়ে এক্সফোলিয়েট করুন।

বাড়িয়ে তুলুন কোলাজেনের মাত্রা
য়স যতই বাড়তির দিকে হোক, ত্বক চিরতরুণ রাখতে মসলিন ব্যবহার করে দেখুন। মসলিন দিয়ে এক্সফোলিয়েট করলে শুধু ত্বকের উপরের মৃত কোষই বিদায় হয় না, বরং সার্বিকভাবে ত্বকের টেক্সচারও উন্নত হয়।

See Also
দিন দিন জেল্লা কমে যাচ্ছে মুখের? জানুন সম্ভাব্য কারণ ও তার সমাধান

গভীর থেকে ত্বক পরিষ্কার করুন
হালকা অথচ ঘনভাবে বোনা সুতির মসলিন ত্বকের সমস্ত নোংরা গভীর থেকে তুলে আনতে পারে। মুখে অয়েল-বেসড যে কোনও ক্লেনজ়ার মেখে মসলিন দিয়ে হালকা হাতে ঘষুন। সমস্ত লুকোনো তেলময়লা, ঘাম, নোংরা উঠে আসবে, আপনার মুখ হয়ে উঠবে পরিপাটি, ঝকঝকে।

ত্বকের প্রদাহ কমান
মসলিন কাপড় দিয়ে মুখ এক্সফোলিয়েট করলে রক্ত সংবহন ব্যবস্থা আরও জোরদার হয়ে ওঠে। নিয়মিত মসলিন কাপড়ের ব্যবহার মুখের ফোলাভাব, লালচেভাব কমায়, ত্বক পরিষ্কার উজ্জ্বল থাকে।

সস্তা ও পরিবেশবান্ধব
মসলিন ব্যবহার করার আর একটা আকর্ষণীয় দিক হল, মসলিন কিনতে খুব একটা খরচ হয় না মোটেই। আর একটুকরো মসলিন কাপড় দীর্ঘদিন ধরে ব্যবহার করা যায়, কারণ মসলিন যত ব্যবহার করা হয় ততই নরম হতে থাকে আর ত্বকের উপর আরও ভালো কাজ করে। মসলিন পরিবেশবান্ধবও, তাই নির্দ্বিধায় ব্যবহার করুন।

What's Your Reaction?
Excited
0
Happy
0
In Love
0
Not Sure
0
Silly
0
Scroll To Top